দক্ষতা বাতায়ন নিয়ে সকল প্রশ্ন

দক্ষতা বাতায়ন কী? 

দক্ষতা বাতায়ন হল বাংলাদেশের জাতীয় পর্যায়ে একটি অনলাইন দক্ষতা প্রশিক্ষণ কেন্দ্র। এখানে সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন দক্ষতা প্রদানকৃত প্রতিষ্ঠান ইতিমধ্যে যুক্ত হয়েছে এবং খুব শ্রিঘ্রিই সকল প্রতিষ্ঠান যুক্ত হবে এবং এর সাথে বিভিন্ন চাকরি প্রদানকৃত প্রতিষ্ঠান ও এর সাথে যুক্ত হচ্ছে। যার ফলে এই বাতায়নের মাধ্যমে আপনারা খুব সহজে কোথায় কোথায় ফ্রি অথবা সহজলভ্য প্রশিক্ষণ চালু রয়েছে এবং কোথায় চাকুরি পাওয়া যারে তা আপনারা জানতে পারবেন এবং কিছুক্ষেত্রে এইখানে আবেদন ও করতে পারবেন।এবং আপনার যেকোনো সমস্যার জন্য ব্লগের মাধ্যমে এইখানে জানাতে ও পারবেন।

দক্ষতা বাতায়ন কেন?
বাংলাদেশ কে উন্নত রাষ্ট্রে পরিনত করার জন্য এবং বাংলাদেশের যুব সমাজের তালিকা গঠন ও তাদের দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষে তৈরি হয়েছে দক্ষতা বাতায়ন। যার মাধ্যমে একজন ব্যক্তি বিভিন্ন প্রশিক্ষণ প্রদানকারি প্রতিষ্ঠানের ভর্তির সময়সীমা অনুয়ায়ী আবেদন করে ভর্তি হতে পারবে এবং দক্ষতা নেওয়ার পর অথবা যদি পূর্বেই দক্ষতা থেকে থাকে তবে সনদ পত্রগুলো এই বাতায়নে স্কেনের মাধ্যমে আপলোড করে সরাসরি এই বাতায়নে নিবন্ধিত ১০০০ কোম্পনির বিভিন্ন জব সার্কুলারে আবেদন করতে পারবেন।

দক্ষতা বাতায়নের মাধ্যমে কোন সনদ পত্র প্রদান করা হবে কি না?

না, দক্ষতা বাতায়নের মাধ্যমে কোন সনদ পত্র প্রদান করা হবে না। এই বাতায়নের দ্বারা শুধু মাত্র প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান ও চাকরি প্রদানকারি প্রতিষ্ঠানের  সাথে যুবদের সম্বন্ময় করে দক্ষ জনশক্তি ও কিছু কিছু ক্ষেত্রে চাকরির প্রদানের সুযোগ সৃষ্টি করা হবে।

দক্ষতা বাতায়নের মাধ্যমে কোথায় প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে?

দক্ষতা বাতায়নে নিবন্ধিত ব্যক্তিদের প্রথম তাদের নিজ নিজ এলাকাতে প্রশিক্ষন প্রদানের জন্য চেষ্টা করা হবে। যেহেতু বাংলাদেশে জনসংখ্যা অতিরিক্ত বেশি তাই এইটা খুবই স্বাভাবিক যে এলাকার প্রশিক্ষণ প্রদানকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতে সেই পরিমানে সিট না ও থাকতে পারে যার জন্য সরকারি প্রতিষ্ঠান গুলোতে নিবন্ধিতদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা এবং অন্যান্য জেলা গুলোতে সরকারি আবাসিক প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান গুলোতে তাদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে।

দক্ষতা বাতায়নের মাধ্যমে চাকরি দেওয়া হবে কি না?

না, দক্ষতা বাতায়নের মাধ্যমে কোন চাকরি প্রদান করা হবে না। দক্ষতা বাতায়ন ব্যক্তির সাথে প্রতিষ্ঠানের স্বন্ময় সাধন করা।চাকরির বিজ্ঞপ্তি দেওয়ার পর তা পরে তাতে আবেদন করা ও সেই ব্যক্তিকে নির্ধারিত পরীক্ষার ভিত্তিতে বাছাই করা সম্পূর্ন প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব দ্বায়িত্ব ইহার দ্বায়িত্ব দক্ষতা বাতায়নের ন্য।কিন্তু কিছু কিছু বিশেষ ক্ষেত্রে যেমন “বিটাক নিবন্ধণ“ এরুপ প্রশিক্ষণের ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত সকল ব্যক্তিকে চাকরি প্রদানের চেষ্টা করা হয় কিন্ত ইহা শুধু বিশেষ বিশেষ প্রশিক্ষণের জন্য। এছাড়া বিভিন্ন জব ফেয়ারে দক্ষতা বাতায়নে নিবন্ধিতদের সাথে দক্ষতা বাতায়ন দ্বারা যোগাযোগের মাধ্যমে দক্ষব্যক্তিকে প্রতিষ্ঠানে প্রেরণ করা হবে এবং প্রতিষ্ঠান তাদের দক্ষতা যাছাইয়ের পর তাকে পচ্ছন্দ হলে চাকরি প্রদান করবে।

মন্তব্য


সাম্প্রতিক পোস্ট

Contact
পরিকল্পনায়

বাস্তবায়নে
Imagr
কারিগরি সহায়তায়
Imagr